চাকরির খবর By admin | Published : Wed, May 11th, 2016

সেনাবাহিনী তে সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট পদে নিয়োগ । (বিস্তারিত…)

অফিসার নেবে সেনাবাহিনী
সম্প্রতি বাংলাদেশ সেনাবাহিনী বিএমএ গ্র্যাজুয়েট কোর্সে প্রার্থী ভর্তির জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে সেনাবাহিনী। নির্বাচিতদের প্রশিক্ষণ শেষে নিয়োগ দেওয়া হবে সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট পদে। আবেদনের শেষ তারিখ ২১ মে। জানাচ্ছেন ইফতেখার শুভ
আবেদন করতে পারবেন যেকোনো অবিবাহিত বাংলাদেশি নারী কিংবা পুরুষ। ১ জানুয়ারি, ২০১৭ তারিখে বয়স হতে হবে ১৯ থেকে ২৪ বছরের মধ্যে। প্রার্থীকে স্নাতক/স্নাতক (সম্মান) পরীক্ষায় সিজিপিএ ৪-এর মধ্যে কমপক্ষে ২.৫ পেতে হবে। এ ছাড়া মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকে থাকতে হবে জিপিএ ৪। পুরুষ প্রার্থীদের উচ্চতা হতে হবে কমপক্ষে ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি এবং বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ৩০ ইঞ্চি, প্রসারিত অবস্থায় ৩২ ইঞ্চি। ওজন থাকতে হবে ৫০ কেজি। নারী প্রার্থীদের উচ্চতা হতে হবে কমপক্ষে ৫ ফুট ২ ইঞ্চি, বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ২৮ ইঞ্চি, প্রসারিত অবস্থায় ৩০ ইঞ্চি। ওজন থাকতে হবে ৪৭ কেজি।

আবেদন করবেন যেভাবে ।
আবেদন করতে হবে অনলাইনে। আবেদন ফি ১০০০ টাকা। প্রার্থীরা মোবাইল ব্যাংকিং, এসএমএস ও ভিসা কিংবা মাস্টার কার্ডের মাধ্যমে আবেদন ফি পরিশোধ করতে পারবেন। আবেদন করতে www.joinbangladesharmy.mil.bd ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে Apply Now অপশনে ক্লিক করতে হবে। এরপর সেখানে প্রয়োজনীয় তথ্য দিতে হবে। প্রাথমিক ও মৌখিক পরীক্ষার কেন্দ্র ও তারিখ পছন্দমতো নির্বাচন করা যাবে। আবেদন সফল হলে অনলাইনেই পাওয়া যাবে প্রাথমিক পরীক্ষার কল-আপ লেটার বা প্রবেশপত্র।

নির্বাচন পদ্ধতিঃ
আবেদনকৃত প্রার্থীদের প্রথমেই প্রাথমিক স্বাস্থ্য ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। স্বাস্থ্য পরীক্ষায় সাধারণত উচ্চতা, ওজনসহ বিভিন্ন শারীরিক বিষয়াদি দেখা হয়। স্বাস্থ্য পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের একই দিনে অংশ নিতে হয় মৌখিক পরীক্ষায়। প্রাথমিক মৌখিক পরীক্ষায় প্রার্থীদের স্মার্টনেসের দিকে লক্ষ্য রাখা হয়। তাই পরীক্ষার দিন প্রার্থীকে অবশ্যই ফরমাল পোশাক পরতে হবে। প্রাথমিক মৌখিক পরীক্ষায় সাধারণত প্রার্থীর পঠিত বিষয় সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয়। এ ছাড়া সমসাময়িক ইস্যু, সাধারণ জ্ঞান ও সশস্ত্র বাহিনী সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয়ে থাকে। প্রাথমিক মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের অংশ নিতে হবে আইএসএসবি (আন্তবাহিনী নির্বাচনী পর্ষদ) পরীক্ষায়। পরীক্ষা হবে ঢাকা সেনানিবাসে। এ পরীক্ষায় প্রার্থীকে চার দিন অবস্থান করতে হয়। এ চার দিনে তাকে বেশ কয়েকটি পরীক্ষায় অংশ নিতে হয়। এ ছাড়া প্রার্থীর নেতৃত্বদানের ক্ষমতা, ব্যক্তিত্বসহ অন্য গুণাবলি দেখা হয় আইএসএসবিতে। আইএসএসবি-উত্তীর্ণ প্রার্থীদের অংশ নিতে হয় চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষায়। এখানে সব ধরনের শারীরিক পরীক্ষা করা হবে। চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষায় যোগ্য প্রার্থীদের চূড়ান্তভাবে নির্বাচন করা হবে। এরপর প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমিতে। সফলভাবে প্রশিক্ষণ শেষ করা প্রার্থীদের সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হবে।

This Post Has Been Viewed 76 Times