Friday 15 April, 2016
International | English Version

লালমনিরহাটে বিদ্যুত বিভাগের গাফলাতির কারনেই ৪টি প্রাণ ঝড়ে গেল

Wed, Apr 5th, 2017 | Published On: admin

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে কলেজ ছাত্রসহ ৪ জনের করুন মৃত্যু হয়েছে। আজ বেলা ১১টার দিকে হাতীবান্ধা উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের কাছিম বাজার গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন:- হাতীবান্ধা উপজেলার ভেলাগুড়ি এলাকার শামছুদ্দিনের ছেলে স্থানীয় বিদ্যুত টেকনেশিয়ান খোরশেদ আলম(৪৫), একই এলাকার আজিজার রহমানের ছেলে স্থানীয় বিদ্যুত টেকনেশিয়ান ফেরদৌস আলম(২৮), গোলাপ মিয়ার ছেলে উকিল(২৫) ও ওই এলাকার জোনাব আলীর কলেজ পড়ুয়া ছেলে মিলটন মিয়া(২৪)। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কাছিম বাজার এলাকায় গত রাতে ঝড়ে ছিড়ে পড়া ১১ হাজার ভোল্টেজের তার বিদ্যুত বিভাগের নির্দেশে স্থানীয় টেকনেশিয়ানরা মেরামত কাজ শুরু করেন। লাইনে বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে ১১ হাজার ভোল্টেজের লাইনে উঠেন টেকনেশিয়ান উকিল মিয়া। এ সময় অসাবধানতা বশত হঠাৎ বিদ্যুত সংযোগ সচল করলে বিদ্যুত স্পৃষ্ঠ হন টেকনেশিয়ান উকিল মিয়া। নিচে থাকা টেকনেশিয়ান খোরশেদ ও ফেরদৌস তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করে তারাও জড়িয়ে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ সময় পথচারী কলেজ ছাত্র মিলটনও ওই বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।স্থানীয়রা ছুটে এসে গুরুতর আহত অবস্থায় উকিল মিয়াকে উদ্ধার করে পাশ্ববর্তি কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসকরা তাকেও মৃত ঘোষনা করেন। ভেলাগুড়ি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মহির উদ্দিন ৪ জন মৃত্যুর সত্যতানিশ্চিত করে জানান, বিদ্যুত বিভাগের গাফলাতির কারনেই ৪টি প্রাণ ঝড়ে গেল। বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হচ্ছে। হাতীবান্ধা বিদ্যুত উন্নয়ন বোর্ডের ইনচার্জ প্রকৌশলী সিরাজুল ইসলাম জানান, ঝড়ের সময় জরুরী কাজে স্থানীয় টেকনেশিয়ানদের সাহায্য নেয়া হয়। তবে এই অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

This Post Has Been Viewed 11 Times